1. admin@zzna.ru : admin@zzna.ru :
  2. md.masudrana2008@gmail.com : admi2017 :
  3. info.motaharulhasan@gmail.com : motaharul :
  4. email@email.em : wpadminne :

ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূতকে তলব জিংপিং প্রশাসনের

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৩ মার্চ, ২০২১
  • ১৭৭ বার
ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূতকে তলব
ফাইল ফটো

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বেজিংয়ের ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূত ক্যারোলিন উইলসনকে তলব চিন সরকারের। গণমাধ্যমে বক্তব্য রাখার স্বাধীনতা ইস্যুতে বাইডেন প্রশাসনের সঙ্গে সংঘাতে জিংপিং প্রশাসন। সম্প্রতি জনপ্রিয় চিনা সোশাল মিডিয়া নেটওয়ার্ক WeChat-এ নিজের কিছু পোস্ট করেছিলেন চিনে নিযুক্ত ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূত ক্যারোলিন উইলসন। তাঁর সেই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতেই তাঁকে তলব করেছে চিন সরকার।

ইতিমধ্যেই ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূতের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে চিনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। গত সপ্তাহেই জনপ্রিয় চিনা সোশাল মিডিয়া নেটওয়ার্ক WeChat-এ নিজের কিছু বক্তব্য পোস্ট করেছিলেন চিনে নিযুক্ত ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূত ক্যারোলিন উইলসন। সংবাদসংস্থা CNN জানাচ্ছে সোশাল নেটওয়ার্কে সেই পোস্টটিতে ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূত উইলসন বলেছিলেন, ‘‘বিদেশি মিডিয়াগুলিকে চিনে ভুল উপস্থাপন করা হচ্ছে। যা তাদের ইতিবাচক ভূমিকাকে অস্পষ্ট করে দিচ্ছে।’’

সিএনএন-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূত ক্যারোলিন লিখেছেন, ‘‘চিনে বিদেশি গণমাধ্যমগুলির সমালোচনা মানে এই নয় যে তারা চিনকে অপছন্দ করেন। আমি বিশ্বাস করি, যে তারা সততার সঙ্গে কাজ করেন। সরকারি পদক্ষেপের নজরদারি হিসেবে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। প্রত্যেকের সঠিক তথ্য পাওয়ার অধিকার আছে। যাঁদের কণ্ঠ দৃপ্ত নয়, তাঁদেরও স্বার্থ সুরক্ষিত করতে হবে।’’

হংকংয়ের রাজনৈতিক ভবিষ্যত এবং জিনজিয়াংয়ের মানবাধিকার-সহ একাধিক ইস্যু নিয়ে গত কয়েকমাস ধরে চিন ও ব্রিটেনের মধ্যে দ্বন্দ্ব বাড়ছে। চিনা প্রযুক্তি সংস্থা হুয়াই এবং ব্রিটিশ ব্যাংক এইচএসবিসি-সহ ব্যবসাগুলিতে পারিশ্রমিকের কারণ নিয়েও দুই দেশের মধ্যে দ্বন্দ্বের পরিবেশ তৈরি হচ্ছে। জনপ্রিয় চিনা সোশাল মিডিয়া নেটওয়ার্ক WeChat-এ চিনে নিযুক্ত ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূত ক্যারোলিন উইলসন আরও লিখেছেন, ‘‘চিনের মিডিয়া বিদেশি মিডিয়াগুলির মতো নয়। চিনের মিডিয়া কেবল সরকার কর্তৃক অনুমোদিত শর্ত অনুযায়ী সমালোচনামূলকভাবে রিপোর্ট করতে পারে।’’

ক্যারোলিন উইলসনের সোশাল মিডিয়ায় এই পোস্ট ঘিরে বেজায় চটেছে চিনা সরকার। ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূতের এই আচরণ অনভিপ্রেত বলেও মনে করে বেজিং। সেই কারণেই চিন সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবার তলব করেছে ক্যারোলিনকে।

বাংলার বিবেক /এএইচ

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 BanglarBibek
Customized BY NewsTheme