1. md.masudrana2008@gmail.com : admi2017 :
  2. info.motaharulhasan@gmail.com : motaharul :
পাবনায় প্রেসক্লাব সংলগ্ন ইভিনিং টাচ আবাসিক হোটেলে অভিযান, আটক-১০ - Banglar Bibek

পাবনায় প্রেসক্লাব সংলগ্ন ইভিনিং টাচ আবাসিক হোটেলে অভিযান, আটক-১০

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৮ জুলাই, ২০২২
  • ২৯ বার
পাবনায় প্রেসক্লাব সংলগ্ন ইভিনিং টাচ আবাসিক হোটেলে অভিযান, আটক-১০
পাবনায় প্রেসক্লাব সংলগ্ন ইভিনিং টাচ আবাসিক হোটেলে অভিযান, আটক-১০
1 / 100

আর কে আকাশ, পাবনা প্রতিনিধি: পাবনা শহরের প্রেসক্লাব গলিতে অবস্থিত ইভিনিং টাচ আবাসিক হোটেল-১-এ অভিযান চালিয়ে অনৈতিক কাজে জড়িত থাকায় ১০ জনকে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) দুপুরে শহরের সোনাপট্টির প্রেসক্লাব গলিতে অভিযান চালানো হয়।

আটকরা সবাই স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে। তবে তাদের নাম-পরিচয় প্রকাশ করেনি ডিবি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পাবনা ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন বলেন, অনৈতিক কর্মকা- হয়- এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। এ সময় অনৈতিক কাজে জড়িত থাকায় ১০ জনকে আটক করা হয়েছে। তারা সবাই স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী। তাদের পাবনা সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। অভিযানের সময় হোটেলের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা পালিয়ে গেছেন।

তিনি আরও বলেন, পাবনার আবাসিক হোটেলগুলো যেন অনৈতিক কাজের নিরাপদ স্থানে পরিণত হয়েছে। শহরের বেশিরভাগ হোটেলেই ঘণ্টা প্রতি উচ্চমূল্যে চুক্তিভিত্তিক ভাড়া দিয়ে চলছে এসব ব্যবসা। এতে খুব সহজেই অনৈতিক কাজে জড়িয়ে পড়ছে স্কুল-কলেজপড়ুয়া তরুণ-তরুণীরা। এছাড়া পরকীয়া প্রেমিক-প্রেমিকরাও সহজেই অসামাজিক কাজে জড়িয়ে পড়ছে। এ নিয়ে সম্প্রতি গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে প্রশাসনের নজরে আসে। এরপর থেকে শহরের বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে অভিযান চলছে।

অভিযান নিয়ে হোটেলের আশপাশের ব্যবসায়ীরা সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। সোনাপট্টি এলাকার এক স্বর্ণ ব্যবসায়ী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, বিশ্বাস করুন- এই অভিযান নিয়ে এখানকার ব্যবসায়ীরা যে পরিমাণ খুশি হয়েছে তা ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়। এর আগে অনেকবার এখানে প্রশাসনকে ঢুকতে দেখেছি, কিন্তু কাউকে আটক না করেই চলে যেতে দেখিছি। এইবার প্রথম কাউকে আটক করা হলো। মনে হয় এই কিছু একটা হবে। এই জন্য আমাদের পুলিশ সুপারকে অনেক অনেক ধন্যবাদ। আর ইভিনিং টার্চ ১ এর ৩য় ও ৪র্থ তলা মিডিয়া পল্লী হওয়ায় আমার সাধারণ মানুষ প্রতিবাদও করতে পারি না। কারন সাংবাদিকগণ যথন দেখেও না দেখার ভান করে, তখন আমরা বুঝতে পারি তারাও ম্যানেজ। তা না হলে এসব অপকর্মের বিরুদ্ধে তারা নিউজ করে না কেন? এজন্য সাধারন ব্যবসায়ীরা প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না। এছাড়া ইভিনিং টার্চ এর পাশের বিল্ডিংএ পাবনা প্রেসক্লাব অবস্থিত। সেখানকার সাংবাদিকরাও এসব অপকর্মের কোন সংবাদ পরিবেশন করে না। তাই আমরা সাধারন মানুষ অসহায় আতংকিত।

ব্যবসায়ীরা অভিযান  ও গ্রেফতারের জন্য পাবনার পুলিশ সুপারকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

বাংলার বিবেক/এমআরটি

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 BanglarBibek
Customized BY NewsTheme