1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : motaharul :
শিরোনাম :
প্যান্ট তো খুলে পড়ে যাচ্ছে! ভ্রূক্ষেপ নেই তারার, কোন দিকে মন দিতে বললেন? শরীরে লুকানো চার কোটিরও বেশি মূল্যের সোনা! মুম্বইয়ে শুল্ক দফতরের জালে ১১ জন ‘বাচ্চা ছেলে ক্রিকেট চালাতে এসেছিল’, রামিজ রাজাকে কটাক্ষ ওয়াসিম আক্রমের ঠিক সময়ে ঋতুস্রাব হচ্ছে না? কোন খাবারগুলি খেলে সমস্যা থেকে মিলতে পারে মুক্তি? পরনে শুধুই শাড়ি আর নাকের নথ! মোহময়ী অবতারে ক্যামেরাবন্দি হলেন জাহ্নবী নেই অন্তর্বাস, স্পষ্ট বক্ষযুগল! একগুচ্ছ ছবি ভাগ করে উষ্ণতা ছড়ালেন মিয়া খলিফা! ৪৫ বছর বয়সে পেতে চান ১৮ বছর বয়সির পুরুষাঙ্গ! ১৬ কোটি খরচ করতে প্রস্তুত বায়োটেকের সিইও নব্য-নাৎসিদের ধ্বংস করতে এই যুদ্ধ: পুতিন ২৮ বছরের বৌমাকে লুকিয়ে বিয়ে করেছেন ৭০ বছর বয়সি শ্বশুর, ঘুণাক্ষরেও টের পাননি কেউ স্বামীর সঙ্গে পরকীয়া! যৌনকর্মীকে বিবস্ত্র করে বেদম ধোলাই স্ত্রীর
শিরোনাম :
প্যান্ট তো খুলে পড়ে যাচ্ছে! ভ্রূক্ষেপ নেই তারার, কোন দিকে মন দিতে বললেন? শরীরে লুকানো চার কোটিরও বেশি মূল্যের সোনা! মুম্বইয়ে শুল্ক দফতরের জালে ১১ জন ‘বাচ্চা ছেলে ক্রিকেট চালাতে এসেছিল’, রামিজ রাজাকে কটাক্ষ ওয়াসিম আক্রমের ঠিক সময়ে ঋতুস্রাব হচ্ছে না? কোন খাবারগুলি খেলে সমস্যা থেকে মিলতে পারে মুক্তি? পরনে শুধুই শাড়ি আর নাকের নথ! মোহময়ী অবতারে ক্যামেরাবন্দি হলেন জাহ্নবী নেই অন্তর্বাস, স্পষ্ট বক্ষযুগল! একগুচ্ছ ছবি ভাগ করে উষ্ণতা ছড়ালেন মিয়া খলিফা! ৪৫ বছর বয়সে পেতে চান ১৮ বছর বয়সির পুরুষাঙ্গ! ১৬ কোটি খরচ করতে প্রস্তুত বায়োটেকের সিইও নব্য-নাৎসিদের ধ্বংস করতে এই যুদ্ধ: পুতিন ২৮ বছরের বৌমাকে লুকিয়ে বিয়ে করেছেন ৭০ বছর বয়সি শ্বশুর, ঘুণাক্ষরেও টের পাননি কেউ স্বামীর সঙ্গে পরকীয়া! যৌনকর্মীকে বিবস্ত্র করে বেদম ধোলাই স্ত্রীর

আত্মপ্রকাশ ঘটলো নতুন ‘১২ দলীয় জোটের’

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৭৪ বার
আত্মপ্রকাশ ঘটলো নতুন ‘১২ দলীয় জোটের’
আত্মপ্রকাশ ঘটলো নতুন ‘১২ দলীয় জোটের’

অনলাইন ডেস্ক: আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে রাজনৈতিক টানাপোড়েনের মধ্যেই বিএনপির সমমনা ১২টি দলের সমন্বয়ে নতুন রাজনৈতিক জোটের আত্মপ্রকাশ হয়েছে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ জোটের আত্মপ্রকাশ ঘটে।

এ সময় লিখিত বক্তব্যে লেবার পার্টির মোস্তাফিজুর রহমান ইরান সাত দফা দাবি তুলে ধরেন। সেইসঙ্গে বিএনপির ১০ দফা দাবিতে যুগপৎ আন্দোলনে যুক্ত থাকবেন ও ২৭ দফা রূপরেখার সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন।

১২ দলীয় এই জোটে রয়েছে মোস্তফা জামাল হায়দারের নেতৃত্বে জাতীয় পার্টি (জাফর), মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীকের নেতৃত্বে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি, ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ লেবার পার্টি, সৈয়দ এহসানুল হুদার নেতৃত্বে বাংলাদেশ জাতীয় দল, কে এম আবু তাহেরের নেতৃত্বে এনডিপি, শাহাদাত হোসেন সেলিমের নেতৃত্বে বাংলাদেশ লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি বা বিএলিডিপি (একাংশ), অ্যাডভোকেট জুলফিকার বুলবুল চৌধুরীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ মুসলিম লীগ, মুফতি মহিউদ্দিন ইকরামের নেতৃত্বে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম, মাওলানা আবদুর রকীবের নেতৃত্বে ইসলামী ঐক্যজোট, নুরুল ইসলামের নেতৃত্বে বাংলাদেশ সাম্যবাদী দল, অ্যাডভোকেট আবুল কাসেমের নেতৃত্বে বাংলাদেশ ইসলামিক পার্টি, ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধানের নেতৃত্বাধীন জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা, একাংশ)।

জোটের একাধিক নেতা জানান, যুগপৎ আন্দোলন বেগবান করতে ঐক্যবদ্ধ হয়েছে ১২টি রাজনৈতিক দল।

জোটের পক্ষ থেকে ৭ দফা কর্মসূচি দেয়া হয়। দফাগুলো হলো-

১. আমরা বাংলাদেশের ১২টি রাজনৈতিক দল গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের চলমান সরকার বিরোধী যুগপৎ আন্দোলনে ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথের সকল কর্মসূচি সক্রিয়ভাবে পালন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমরা ১২ দল নামেই পরিচিত থাকবো।

২. দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব রক্ষা, গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা এবং জনগণের অর্থনৈতিক মুক্তি লাভই আমাদের সকলের অভিন্ন লক্ষ্য মনে করি।

৩. আমরা বিশ্বাস করি জনগণই সকল ক্ষমতার উৎস। জনগণের ভোটে নির্বাচিত সরকার জনগণের ইচ্ছা আকাঙ্ক্ষা ও স্বার্থের অনুকূলে রাষ্ট্র ব্যবস্থা পরিচালনা করবে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে ২০১৪ এবং ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত দুটি জাতীয় সংসদ নির্বাচনই দলীয় সরকারের অধীনে বিনা ভোট ও রাতের ভোট নামক ভোটারবিহীন কারচুপির নির্বাচন হিসেবে দেশে-বিদেশে সমালোচিত ও নিন্দনীয় হয়েছে এবং নির্বাচনের সকল গ্রহণযোগ্যতা হারায়। তদুপরি অগণতান্ত্রিক, অসংবিধানিক এবং সম্পূর্ণ গায়ের জোরে একটি অনির্বাচিত সরকার পূর্ণ মেয়াদে ক্ষমতাসীন ছিলো এবং আছে।

৪. ভোটার বিহীন অনির্বাচিত সরকার আগামী ২০২৪ সালে অনুষ্ঠিতব্য দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকেও একইভাবে জনগণের ভোটকে পাশ কাটিয়ে নতুন কোনো কলা-কৌশল খাটিয়ে ভোটারবিহীন নির্বাচনের হ্যাটট্রিক করতে চাচ্ছে। বাংলাদেশের জনগণ এবারে রুখে দাঁড়িয়েছে। “বারবার ঘুঘু এসে খেয়ে যেতে দেবে না, দেবো নাকো আর ধান”। বিএনপি’র দশটি বিভাগীয় সমাবেশ প্রমাণ করেছে দেশের মানুষ রুখে দাঁড়িয়েছে। সৃষ্টি হয়েছে ব্যাপক গণজাগরণ। সরকারের পায়ের নিচের মাটি সরে যাচ্ছে তাই শুরু করেছে হামলা মামলা গ্রেপ্তারের মাধ্যমে আন্দোলনকে দমিয়ে রাখার শেষ চেষ্টা।

৫. এমতাবস্থায় আমরা ২০২৪ সালে অনুষ্ঠিতব্য দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে নিদলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে করার জন্য বর্তমান অনির্বাচিত সরকারকে পদত্যাগ করে নির্দলীয় সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের দাবিতে ১০ ডিসেম্বর ২০২২ ঢাকার গোলাপবাগের সমাবেশে বিএনপি ঘোষিত দশ দফা কর্মসূচি এবং ১৯ ডিসেম্বর ২০২২ তারিখে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ঘোষিত ২৭ দফা সংস্কার প্রস্তাব ও উন্নয়ন কর্মসূচিকে জাতীয় মুক্তির সনদ বিবেচনা করে একাত্মতা ঘোষণা করছি। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় গণতন্ত্র, ভোটাধিকার এবং সার্বিক মুক্তির লক্ষ্যে বিএনপি ঘোষিত সকল আহ্বান এবং আন্দোলনের যুগপৎ অংশগ্রহণ করার অঙ্গীকার ঘোষণা করছি।

৬. আমরা বিনা ভোটে নির্বাচিত অবৈধ সরকারকে পদত্যাকে বাধ্য করে একটি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনের মাধ্যমে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবিতে ১২ দল বিএনপি’র সাথে যুগপৎ আন্দোলনে সক্রিয় থাকবো।

৭. দেশের রাজনৈতিক, প্রশাসনিক এবং অর্থনৈতিক পরিস্থিতি ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ নিষ্প্রয়োজন। দেশ ধ্বংসের শেষ প্রান্তে উপনীত। দীর্ঘ ১৪ বছরের লুটপাট ও দুঃশাসন জনগণ রুখে দাঁড়িয়েছে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 BanglarBibek
Customized BY NewsTheme