1. admin@zzna.ru : admin@zzna.ru :
  2. md.masudrana2008@gmail.com : admi2017 :
  3. info.motaharulhasan@gmail.com : motaharul :
  4. email@email.em : wpadminne :
শিরোনাম :
গোদাগাড়ীতে ১০লাখ টাকার হেরোইন-সহ ৩জন মাদক কারবারী গ্রেফতার নগরীর তালাইমারীতে গাঁজা কারকারী মল্লিক গ্রেফতার রাজশাহীতে প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু রিভার সিটি নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত রুয়েটকে স্মার্ট বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে রুপান্তর করতে হলে সকল ক্ষেত্রে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা জরুরী চিপস্ খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে ৬ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণ চেষ্টা: আসামি নাইম গ্রেফতার এইচএসসি পরীক্ষা উপলক্ষ্যে আরএমপি’র নোটিশ জারি তানোরে ক্লুলেস হত্যা মামলার পলাতক আসামি ইকবাল গ্রেফতার কৃষিতে বির্পযয়ের আশঙ্কা তানোরে চোরাপথে আশা মানহীন সারে বাজার সয়লাব বাঘায় বাবুল হত্যা মামলায় চেয়ারম্যানসহ ৭ জনকে রিমান্ড শেষে কারাগারে প্রেরণ সিংড়ায় ক্যান্সারে আক্রান্ত ২২ ব্যক্তির মাঝে চেক বিতরণ
শিরোনাম :
গোদাগাড়ীতে ১০লাখ টাকার হেরোইন-সহ ৩জন মাদক কারবারী গ্রেফতার নগরীর তালাইমারীতে গাঁজা কারকারী মল্লিক গ্রেফতার রাজশাহীতে প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু রিভার সিটি নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত রুয়েটকে স্মার্ট বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে রুপান্তর করতে হলে সকল ক্ষেত্রে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা জরুরী চিপস্ খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে ৬ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণ চেষ্টা: আসামি নাইম গ্রেফতার এইচএসসি পরীক্ষা উপলক্ষ্যে আরএমপি’র নোটিশ জারি তানোরে ক্লুলেস হত্যা মামলার পলাতক আসামি ইকবাল গ্রেফতার কৃষিতে বির্পযয়ের আশঙ্কা তানোরে চোরাপথে আশা মানহীন সারে বাজার সয়লাব বাঘায় বাবুল হত্যা মামলায় চেয়ারম্যানসহ ৭ জনকে রিমান্ড শেষে কারাগারে প্রেরণ সিংড়ায় ক্যান্সারে আক্রান্ত ২২ ব্যক্তির মাঝে চেক বিতরণ

রাজশাহীতে ওসিকে লাঞ্চিত করলো সুদ ব্যবসায়ী!

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৭ মার্চ, ২০২১
  • ২০০ বার
রাজশাহীতে ওসিকে লাঞ্চিত করলো সুদ ব্যবসায়ী!
রাজশাহীতে ওসিকে লাঞ্চিত করলো সুদ ব্যবসায়ী!

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী নগরীতে গন্ডগোল করতে নিষেধ করায় চন্দ্রিমা থানার ওসিকে লাঞ্ছিত করেছে স্থানীয় সুদ ব্যবসায়ীরা। এমনই অভিযোগ পাওয়া গেছে স্থানীয়দের মূখে।

শুক্রবার (২৬ মার্চ) রাত ৯টার দিকে নগরীর চন্দ্রিমা থানাধিন হাজরা পুকুর ডাবতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়া জানায়, নগরীর হাজরা পুকুর ডাবতলা এলাকায় সুদের টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে শরীফের সাথে একই এলাকার মাসুমের বাক-বিদন্ডার সৃষ্টি হয়।

এ সময় ওই পথ দিয়েই চন্দ্রিমা থানার ওসি তার গাড়িতে করে থানায় যাচ্ছিলেন। সেখানে বিশৃঙ্খলা দেখে গাড়ি থামিয়ে নামেন তিনি। নামার পরে তাদের ঝগড়া বিবাদ না করার জন্য নিষেধ করেন।

বলেন, থানায় এসে অভিযোগ দেন। আইনশৃঙ্খলার বিঘ্ন ঘটলে উভয় পক্ষকে আটক করা হবে। কিন্তু কে শোনে ওসির কথা।

সুদ ব্যবসায়ী শরিফ ওসিকে বলেন, এটা আমাদের ব্যক্তিগত ব্যপার। আপনি নিজের কাজে যান। এছাড়াও ওসির উপস্থিতিতে সুদ ব্যবসায়ী শরিফ মাসুমকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করাসহ মারমুখি আচারন করতে থাকে। সেখানে দুই পক্ষের শতাধিক মানুষও জড়ো হয়।

ওসি বুঝতে পারেন গন্ডগোলের সৃষ্টি হতে যাচ্ছে। এমন আশংকায় তিনি মাসুম এবং শরিফকে গাড়িতে তোলার নির্দেশ দেন কন্সটেবলদের। কথা মতো সেচ্ছায় মাসুম গাড়িতে উঠে বসেন। কিন্তু শরিফ গাড়িতে না উঠে ওসির সাথে তর্কে জড়ান।

এ সময় সুদ ব্যবসায়ী শরিফকে গাড়িতে তোলার চেষ্টা করে পুলিশ। তবে শরিফ ও তার বাবা আমির হোসেন পুলিশ ফোর্সদের মারমুখি আচারন করাসহ ওসিকে ধাক্কা দেয় এবং লাঞ্ছিত করে।

এছাড়াও মাছুয়া সর্দার আমির হোসেন ও তার ছেলে শরিফের লোকজন পুলিশের কাছ থেকে শরিফকে ছিনিয়ে নেয়। শরিফ হাজরা পুকুর ডাবতলা এলাকার সুদ ব্যবসায়ী লাইলীর জামাই ও মাছুয়া সর্দার আমিরের ছেলে। সে নিজেও একজন সুদ ব্যবসায়ী বলেও জানায় স্থানীয়রা।

জানতে চাইলে চন্দ্রিমা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সিরাজুম মনির বলেন, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এবং সংঘর্ষ এড়াতে শরিফ ও মাসুমকে গাড়িতে তোলার জন্য পুলিশ ফোর্সদের নির্দেশ দেই। মাসুম সেচ্ছায় গাড়িতে ওঠে। কিন্তু শরিফকে গাড়িতে তোলার চেষ্টা করলে সে এবং তার পিতা আমির আমাদের সাথে মারমুখি আচারন করে। এক পর্যায়ে তাদের লোকজন মিলে আমাকে এবং আমার ফোর্সদের লাঞ্ছিত করে গাড়ি থেকে শরিফকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

ওসি আরো বলেন, এ ব্যাপারে উর্দ্ধতম কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এদিকে, নাম প্রকাশ না করা শর্তে একাধিক ভুক্তভোগীরা জানায়, সুদ ব্যবসায়ী পরিবারের অত্যাচার ও নির্যাতনে সর্বশান্ত হয়েছেন শতাধিক দিনমুজুর ও মধ্যবিত্ত পরিবারের লোকজন। এরই মধ্যে চড়া সুদে টাকা নেয়া এসকল লোকজন মুখ খুলতে শুরু করেছে।

১০ থেকে ২০ হাজার টাকা সুদে নিয়ে জিম্মি হয়ে পড়েছেন লাইলী ও তার জামাই শরিফের কাছে। ১ থেকে ২ লাখ টাকারও বেশি অতিরিক্ত সুদ দিয়েও পরিশোধ হয়না তাদের আসল (মূল) টাকা।

কিছু বলতে গেলেই তাদের ভাড়াটিয়া গুন্ডাবাহিনি লেলিয়ে দেয় সুদের টাকা আদায়ের জন্য। সেই সাথে শুরু হয় মারধর নির্যাতন ও নানা ধরনের অত্যাচার।

এ ব্যাপারে সুদ ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে আরএমপি পুলিশের পুলিশ কমিশনার এর দৃষ্টি আর্কষন করছেন ভুক্তভোগীরা।

বাংলার বিবেক/  জি আর

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020 BanglarBibek
Customized BY NewsTheme